শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৫০ অপরাহ্ন

মুসাপুরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গাস দখল করে দোকান নির্মাণের অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে মুসাপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডে বালিগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সম্পত্তি দখল করে দোকান নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে জনৈক স্কুল শিক্ষক নাছির ও আবু সাঈদ গংয়ের বিরুদ্ধে। নিজেদেরকে বিদ্যালয়ের জমিদাতা দাবি করে দীর্ঘ দিন ধরে ওই প্রতিষ্ঠানের সম্পত্তি জবর দখল করে আসছে। নাছির ও আবু সাঈদ বাহিনী প্রভাবশালী ও সংঘবদ্ধ হওয়ায় এলাকাবাসী প্রতিবাদের সাহস পাচ্ছেনা।

বালিগাঁও গ্রামে স্থানীয় বাসিন্দা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, আজ থেকে প্রায় ৪৫ বছর আগে এলাকার বেশ কয়েকজন দানবীর বিদ্যালয়ের জন্য সম্পত্তি দান করে গেছেন অথচ ইদানীং কেউ কেউ নিজেদেরকে ওই সম্পত্তির দাতা দাবি করে সেই জায়গা জোরপূর্বক ব্যবহার করে আসছে। জমি যদি তাদের পূর্ব পুরুষ দানও করে থাকে তারপরওতো তারা সেই জমি ব্যবহার করতে পারেনা। দানস্বত্ত¡ জাগায় আর কোন হস্তক্ষেপ চলেনা। অনেক দিন ধরেই তারা এলাকার গুঁটিবাজ পরাজিত মেম্বার মুরগী কাদেরের কু-বুদ্ধিতে নাছির মাষ্টার ও আবু সাঈদ গং স্কুলের জায়গা নিয়ে নানা জটিলতা সৃষ্টি করছে।

একই শর্তে আরো এক বাসিন্দা জানান,আমরা স্কুলের পাশের সরু রাস্তাটি দিয়ে আমাদের অনেক পুরনো মসজিদ বাইতুল আকসা জামে মসজিদে নামাজ পড়তে যাই কিন্তু নাছির মাষ্টার এই সরু রাস্তা দখল করে দোকান তৈরি করে ভাড়া দিয়ে ব্যবসা করতে চাইছে। প্রকাশ থাকে যে,বিদ্যালয়ের সম্পত্তি দখল দখল মুক্ত করতে প্রায় ৫মাস পূর্বে এই নাছির মাষ্টার বাহিনীর বিরুদ্ধে মানববন্ধন করে এলাকাবাসী। নাছির মাষ্টার নিজেও একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হয়েও আরেকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জায়গা এইভাবে দখল করে রাখার বিষয়টি বেমানান। যেহেতু গোটা সম্পত্তিটি সরকারি প্রাতিষ্ঠানের নামে ওয়াকফা করা হয়েছে সেহেতু এই সম্পত্তিটি যাতে সরকারিভাবে দখল মুক্ত করা হয় সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তদন্ত পূর্বক আশু ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে বন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শুক্লা সরকার জানান,বিষয়টি আমার জানা নেই তবে এ ধরণের অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।