শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১, ০৮:০৬ অপরাহ্ন

ঘুরকা ইউনিয়ন বাসীর পাশে থেকে সেবা করতে চাই- আখতারুজ্জামান(সাচ্চু)

সাধারণ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাওয়ার প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে যেতে চান
কর্মীবান্ধব নেতা বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সলঙ্গা থানা কমিটির সাবেক সদস্য,সিরাজগঞ্জ কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য,ও সলঙ্গা থানা কৃষকলীগের বিল্লবী সাধারণ সম্পাদক মোঃ
আখতারুজ্জামান(সাচ্চু)।
সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার সলঙ্গা থানার ৪নং ঘুরকা ইউনিয়নের। আখতারুজ্জামান(সাচ্চু)একজন সমাজসেবক হিসেবে ইউনিয়নবাসীর কাছে বেশ পরিচিত। জনগণের পাশে থেকে কাজ করার প্রত্যয়ে আগামীতে ঘুরকা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন। এমনকি জনগণের সেবা করার জন্যই চেয়ারম্যান নির্বাচন করবেন। ইউপি নির্বাচনী বিষয় নিয়ে ‘দৈনিক জলকথা কে, এক সাক্ষাৎকারে আখতারুজ্জামান(সাচ্চু) এসব কথা বলেন৷
জানা গেছে, এলাকায় রয়েছে আখতারুজ্জামান(সাচ্চু) ব্যাপক পরিচিতি। তিনি একজন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবেও পরিচিত। শুধু তাই নয়, অসহায় দরিদ্রের বন্ধু বলেও সবার মাঝে পরিচিত। যে কোন সামাজিক কাজে ছুটে আসেন তিনি৷ এমনকি ভালো কাজকে হ্যা এবং খারাপ কাজকে না বলে থাকেন৷ সবসময় ন্যায়ের পক্ষে এবং অন্যায়ের বিপক্ষে কথা বলেন তিনি৷
এভাবেই মানুষের পাশে থাকার কারনে ধীরেধীরে বাড়তে থাকে সমাজে তার জনপ্রিয়তা৷ জনগণের একটাই কথা তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে পাল্টে যাবে এই ইউনিয়নের চিত্র। ঘুরকা ইউনিয়ন হবে মডেল ইউনিয়ন।
আর থাকবে না রাস্তাঘাটের কারনে ভোগান্তি। এমনকি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সার্বক্ষণিক নাগরিকত্ব সেবা পাবে জনগণ।

ঘুরকা ইউনিয়নবাসী জানিয়েছেন, অন্যায় ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে আখতারুজ্জামান(সাচ্চু) একজন প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর। কোন অনিয়ম দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেন না তিনি। এমনকি মাদকের বিরুদ্ধে সবসময় কঠোর তিনি৷ তরুণ ও যুবসমাজ যেন মাদকের ভয়াবহ ছোঁবলে না পড়ে সেজন্য ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় যুবক ও তরুনদের নিয়ে মতবিনিময় ও উঠোন বৈঠক করে থাকেন৷সব মিলিয়ে আখতারুজ্জামান(সাচ্চু)কে,
জনপ্রতিনিধি হিসেবে দেখতে চান ইউনিয়নবাসী। তবে এখন সময়ের অপেক্ষায় রয়েছে জনগণ। আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনয়ন ক্ষেত্রেও তিনি অনেকটাই আলোচিত বলে জানা গেছে৷ নির্বাচনের ভোটের মধ্য দিয়ে
আখতারুজ্জামান সাচ্চুর বিজয় নিশ্চিত হবে বলেও জানান এলাকাবাসী।

ঘুরকা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী আখতারুজ্জামান সাচ্চু ‘দৈনিক জলকথা কে’ বলেন, জনগণ চাচ্ছে বলেই আমি নির্বাচন করতে ইচ্ছে প্রকাশ করেছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিলে জনগনের পাশে থেকে নির্বাচন করবো ইনশাআল্লাহ। কারন জনগণের ভোট ছাড়া আমি নির্বাচনে বিজয়ী হতে পারবো না৷ তাই জনগণের সিদ্ধান্তই আমার চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

তিনি আরও বলেন, আমরা মানুষ জাতি হিসেবে অন্যদের পাশে থেকে তাদের সেবা করাটা আমাদের দায়িত্ব। আগামীতে আমি ইউপি নির্বাচন করবো শুধু জনগণের জন্য। বিগতদিন থেকেই স্বপ্ন ছিল জনপ্রতিনিধি হয়ে জনগণের পাশে থাকবো৷ তাই সকলের চাওয়ায় আমি নির্বাচন করবো বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন৷

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।